মাঠে ময়দানে

ইতিহাসে প্রথম এক বছরের জন্য স্থগিত হলো অলিম্পিক

করোনাভাইরাসের ভয়াবহতায় অবশেষে পিছিয়েই দিতে হলো টোকিও অলিম্পিক-২০২০। আগামী জুলাইয়ে জাপানের টোকিওতে হওয়ার কথা ছিল বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রীড়া আসরটি। সেটি এক বছর পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে।

করোনার কারণে সারা বিশ্ব থেকেই দাবি উঠে টোকিও অলিম্পিক পিছিয়ে দেয়ার জন্য। প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে কানাডা, যুক্তরাষ্ট্র, স্পেন, ইতালি, অস্ট্রেলিয়া- প্রায় সবাই চাইছিল ‘অলিম্পিক পিছিয়ে দেয়া হোক’। অধিকাংশেরই দাবি ছিল, অন্তত এক বছর পিছিয়ে ২০২১ সালে আয়োজন করা হোক অলিম্পিক গেমস।

সেই দাবি মেনে নিল আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি (আইওসি)। জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে আজ (মঙ্গলবার) সন্ধ্যার পরই জানালেন, আইওসির প্রধান থমাস বাচ টোকিও অলিম্পিক এবং প্যারাঅলিম্পিক আগামী গ্রীষ্ম পর্যন্ত স্থগিত করার ব্যাপারে সম্মত হয়েছেন।

১২৪ বছরের ইতিহাসে এবারই প্রথমবারের মতো স্থগিত করা হলো অলিম্পিক গেমস। এর আগে বিশ্বযুদ্ধের কারণে ১৯১৬, ১৯৪০ এবং ১৯৪৪ সালের অলিম্পিক হয়নি।

বিশ্বব্যাপী প্রবল সমালোচনার মুখে পড়ার পরও অলিম্পিকের ভবিষ্যত নির্ধারণের জন্য চার সপ্তাহ সময় চেয়েছিল টোকিও অলিম্পিকের আয়োজক কমিটি। তবে শিনজো আবে আজ জানিয়েছেন, অলিম্পিকের এবারের আসর এক বছর পিছিয়ে দেয়ার প্রস্তাবে শতভাগ সম্মতি দিয়েছেন বাচ।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *